১০৬ তম প্রাইজবন্ড ড্র ২০২২

১০৬ তম প্রাইজবন্ড ড্র ২০২২ প্রকাশিত হয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংকের অধীনে। এই প্রাইজবন্ড এর ফলাফলের যারা বিজয়ী হয়েছেন তাদের নামের তালিকা বাংলাদেশ ব্যাংকের এক বিজ্ঞপ্তিতে প্রকাশ করা হয়েছে। আপনি এই সৌভাগ্যবানদের তালিকায় রয়েছেন কিনা তা দেখতে নিচের সংযুক্তি অনুসরণ করুন।

প্রাইজবন্ড কি?

প্রাইজবন্ড হলো এক ধরনের লটারি যা বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক নিয়ন্ত্রিত হয়ে থাকে। ১৯৭২ সাল থেকে নিয়মিত প্রতিবছর প্রাইজবন্ড ছাড়া হয়ে থাকে। একজন মানুষ চাইলে যত খুশি ততো প্রাইজবন্ড কিনতে পারেন। বাংলাদেশের যেকোনো সরকারি ব্যাংক থেকে অর্থের বিনিময়ে সমপরিমাণ প্রাইজবন্ড সংগ্রহ করা যায়। পরবর্তীতে যখন এই প্রাইজবন্ডের ফলাফল প্রকাশ করা হয় তখন যারা বিজয়ী হন তাদেরকে আকর্ষণীয় পুরস্কার প্রদান করা হয়ে থাকে।

আপনি যদি প্রাইজবন্ডের ফলাফল এর বিজয়ী না হয়ে থাকেন তাহলে চাইলে প্রাইজবন্ড সরকারি যে কোন ব্যাংকে ফেরত দিয়ে আপনার সমপরিমাণ টাকা তুলে নিতে পারবেন। তবে এর জন্য আপনার প্রাইজবন্ড অবশ্যই অক্ষত অবস্থায় থাকতে হবে। 

প্রাইজবন্ড ড্র ২০২২ কিভাবে দেয়া হয়ে থাকে?

আসলে প্রাইজবন্ড এক ধরনের লটারি বলতে পারেন যা জৈব পদ্ধতিতে নির্বাচন করা হয়। আপনি যদি সৌভাগ্যবান হয়ে থাকেন তাহলে আপনি হতে পারেন প্রাইজবন্ড নামক এই লটারির প্রথম বিজয়ী। তবে প্রাইজবন্ডের ফলাফল এ অনেকগুলো পুরস্কার প্রদান করা হয়ে থাকে।

প্রাইজবন্ডের পুরস্কার হিসেবে কি কি দেওয়া থাকে?

বাংলাদেশ কর্তৃক প্রতি বছর ৩১ শে জানুয়ারি, ৩০ শে এপ্রিল, ৩১শে জুলাই, এবং ৩১ শে অক্টোবর প্রাইজবন্ডের ফলাফল প্রকাশিত হয়ে থাকে। প্রতিটি ফলাফলের প্রায় তিন হাজারের কাছাকাছি পুরস্কার দেওয়া হয়। পুরস্কার সম্পর্কে বিস্তারিত দেখতে নিচের সংযুক্তি অনুসরণ করুন। 

সকল সরকারি ছুটির তালিকা ২০২২

কিভাবে প্রাইজবন্ডের টাকা পাবেন?

আপনি যদি প্রাইজবন্ডের যে কোন ফলাফলে বিজয়ী হয়ে থাকেন তাহলে সেটি অবশ্যই বাংলাদেশের যে কোন ব্যাংকে জানাতে হবে। ব্যাংকে জানালে তারা আপনাকে পূরণ করার জন্য একটা ফরম প্রদান করবে। ফরম পূরণ করে দেব আর দুই মাসের মধ্যে আপনি আপনার পুরস্কারের টাকা হাতে পেয়ে যাবেন ব্যাংকের মাধ্যমে। কিন্তু মনে রাখতে হবে যে আপনি যত টাকা পুরস্কার পাবেন তার ওপর 20% বাংলাদেশ সরকারকে কর প্রদান করতে হবে। 

প্রাইজবন্ড সম্পর্কে যদি আপনার আরো কিছু জানার থাকে তাহলে আমাদেরকে কমেন্ট করে জানাতে পারেন।

Mitu Khatun
Mitu Khatun

আমি মিতু। সবসময় লিখালিখি করতে ভালোবাসি। আর ভালোবাসি স্বাধীনভাবে বেচে থাকতে।

Articles: 211

2 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *