জন্ম নিবন্ধন করার নতুন নিয়ম | জন্ম নিবন্ধন করতে লাগবে না বাবা মায়ের জন্ম সনদ

শুরু হয়েছে জন্ম নিবন্ধন করার নতুন নিয়ম। সম্প্রতি মা বাবার জন্ম সনদ বাধ্যতামূলক করে নিয়ম কার্যকরের দেড় বছরের বেশি সময় পর তা তুলে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এখন থেকে সন্তানের জন্ম নিবন্ধন করার জন্য লাগবে না মা-বাবার জন্ম সনদ। রেজিস্টার জেনারেল এর কার্যালয় (জন্ম ও মৃত্যু) নিবন্ধন জানিয়েছে ২৭ শে জুলাই থেকে জন্ম নিবন্ধনের আবেদন করতে গেলে সফটওয়ারে মা বাবার জন্ম সনদ চাওয়া হচ্ছে না।

জন্ম নিবন্ধন করার নতুন নিয়ম

জন্ম নিবন্ধন করার নতুন নিয়ম

এতে বিয়ে বিচ্ছেদ হওয়া পরিবারের সন্তান, যাদের মা কিংবা বাবা যেকোনো একজনের সাথে যোগাযোগ নেই এবং পথ শিশুদের জন্ম নিবন্ধন করতে যে জটিলতা ছিল তা থাকছে না। ফলে ভোগান্তির হাত থেকে রেহাই পাচ্ছে জন্ম নিবন্ধন কর্তৃপক্ষ ও সাধারন মানুষ।

রেজিস্টার জেনারেল কার্যালয় জন্ম নিবন্ধন আবেদনের বর্তমান অবস্থা সম্পর্কে আরো জানায়, এখন থেকে হাসপাতালে জন্ম নেয়ার পর দেওয়া ছাড়পত্র বা টিকার কাগজ যে কোন একটি প্রমাণ দেখিয়ে শিশুর জন্ম নিবন্ধন করা যাবে।

আরও দেখুনঃ অন্যান্য

যদিও এ নিয়ম আগেও কার্যকর ছিল। কিন্তু ২০২১ সালের পহেলা জানুয়ারি থেকে এই নিয়ম পরিবর্তন করে বলা হয়েছিল যে ২০০১ সালের পর জন্ম নেওয়া ব্যক্তিদের জন্ম নিবন্ধন করতে হলে তার বাবা-মায়ের জন্ম নিবন্ধন সনদ অবশ্যই প্রয়োজন হবে। কিন্তু ওই সময় জন্ম নিবন্ধন করতে গিয়ে নানা ভোগান্তির শিকার হন অভিভাবকরা। যার কারণে এই নতুন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

রেজিস্টার জেনারেল মির্জা তারিক হিকমত এই নিয়মের যৌক্তিকতা তুলে ধরে বলেন জন্ম নিবন্ধন এর আন্তর্জাতিক ব্যবহার সম্পর্কে জানার কারণে ভবিষ্যতের কথা ভেবে মা-বাবার জন্ম সনদ চাওয়া হতো। এটা মা-বাবার সঙ্গে সন্তানের পরিচিতির একটা পদ্ধতি ছিল। বর্তমানে মা বাবার জন্ম সনদের বাধ্যবাধকতা তুলে দেওয়া য় এই সুযোগটি নষ্ট হয়ে যাবে।

জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন বিধিমালা ২০১৮- এর ৩ (গ) ধারা অনুসারে কোন ব্যক্তি এতিম প্রতিবন্ধী তৃতীয় লিঙ্গ পিতৃ মাতৃ পরিচয়হীন, বেদে, ভবঘুর, পথবাসি বা ঠিকানাহীন বা যৌনকর্মী হলে সেসব তথ্য অসম্পূর্ণ থাকবে। সেসব স্থানে অপ্রাপ্য লিখে জন্ম মৃত্যু নিবন্ধন করতে হবে। এবং এসব ক্ষেত্রে তথ্যের ঘাটতির কারণ দেখিয়ে নিবন্ধক জন্ম বা মৃত্যু নিবন্ধন প্রত্যাখ্যান করতে পারবেন না।

Mitu Khatun
Mitu Khatun

আমি মিতু। সবসময় লিখালিখি করতে ভালোবাসি। আর ভালোবাসি স্বাধীনভাবে বেচে থাকতে।

Articles: 211

2 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *